বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২০

কিছু বই কিছু কথা। নীলাঞ্জন কুমার আলখরিস । পার্থসারথি উপাধ্যায়

কিছু বই কিছু কথা। নীলাঞ্জন কুমার 



আলখরিস । পার্থসারথি উপাধ্যায় । বিনির্মাণ । পনের টাকা ।


' চোখে চোখে কথা হয়,  মুঠো থেকে খসে যায় পলকা সময়/  চুমুকে চুমুকে তুলি তোমার জহর ' ( ' আলখরিস  ') নয়তো ' কুচো চিংড়ির মতো তিন লাফে এই থেকে ওই/  মুচির চামড়ার মতো ভালোবাসা/  আয় ঘেন্না করি ' ( ' খ্যালা ' ) র মতো এক আলাদা চিন্তাভাবনা  নিয়ে আজ থেকে পনেরো বছর আগে প্রকাশ পেয়েছিল পার্থসারথি উপাধ্যায়ের  কাব্য পুস্তিকা ' আলখরিস ' । যা ক্লিশে কবিতার বাইরে সামান্য হলেও মুক্ত অক্সিজেন । 

    ৩২ পৃষ্ঠার ২৬টি কবিতার এই পুস্তিকাতে কোন কোন জায়গায় অতিরিক্ত কথা বলার প্রবণতা নিয়ে কবিতা সৃষ্টি হলেও কবির চেতনা ধাক্কা দেয় পাঠককে গভীরতায় যেতে । কবির প্রতিবাদী রূপ দর্শন করি ' '  'প্রস্তাবনা ' কবিতায়:  '  এই সময়ের বুকের ওপর এখন আমার অহংকারী পদচারণা/  বিশ্ব সুন্দরীদের মুখে পেচ্ছাপ করে দিয়ে আমার দর্পিত ব্রহ্মচর্যবিদ্যা । ' কিংবা  ওই কবিতাতেই  : ' শতাব্দী পার করে এক খচ্চর তার খোলস পাল্টায়/  মুখস্থ বমি করতে করতে এক শালিখনন্দন/  দরবেশের দাড়ি গজিয়ে বসে । ' তন্নিষ্ঠ করে । পাশাপাশি ' লিরিক  ' কবিতাতে তার বিপরীত প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করি : ' এসো সমুদ্রের লবন হাওয়ায় মিশুক ভারতের/  পুরনো মধুর মতো নিজস্ব আঘ্রাণ/  এসো প্রজন্ম বিনিময় করি । ' 

            ' আলখরিস ' পুস্তিকাতে লুকিয়ে আছে বহু নির্মাণ, যা বিনির্মাণ বলা যায় । কবি চেয়েছেন  চেনা জগৎ অন্যভাবে দেখতে,  তাতে দোষ নেই,  তবে অহেতুক গর্জন বা মাধুর্যের শেষ সীমায় পৌঁছোনোর প্রচেষ্টা কৃত্রিম মনে হয় ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

আশ্চর্য সহবাস || শ্রাবণী গুপ্ত || কবিতা

আশ্চর্য সহবাস শ্রাবণী গুপ্ত একটা গোটা জীবন আমরা গাছের বেড়ে ওঠা দেখলাম জাফরীর মতো আলো-ছায়া এসে পড়ল আমাদের গায়ে, হৃদয়ে তবু ঘৃণা করতে গিয়ে আম...