Sunday, September 2, 2018

ছড়া, সৌমিত্র রায়

সুবোধ প্যাসেঞ্জার আর এঁচড়ে পাকা কবি
..................................................
সৌমিত্র রায় 

(সতর্কীকরণ:~
শিশু এবং বয়স্করা এই ছড়াটি পড়বেন না;
খামোখা যদি পড়েও ফেলেন,
আশুত গাছে চড়বেন না ৷)


পৌঁছে গেছি
সাঁতরাগাছি
সময় এগারো তেরো ৷

কবি এবার 
আরামখানায়
জিরিয়ে নিতে পারো !!

কী উদ্ভট সময় রে ভাই,
ভেতর ভেতর কোঁকাই ! 
ট্রেন ও বাসে 
এ ওর পাশে 
বগল তোলে, শুঁকায় ?

হা হা হা হা....
বিজ্ঞাপনের সুগন্ধীটা 
মনে পড়ছে না ?

কারো আবার এমনি রকম ঘুম,
সিট মিলতেই 
ওমনি বসে 
শুরু ঢুলার ধুম !

টপাস করে পড়লো খসে লালা,
দু-চোখ বোজা, হাঁ-মুখ যেন একেক খানি জালা...

হা হা হা হা...
ছেলেবেলার লালাপোষটি
গলায় বাঁধো না !

সুযোগ পেলেই ঝগড়া করে এ ও,
কথার গুঁতোই একে অন্যে লুটিয়ে দেবে দেহ

হা হা হা হা...
ঝগড়াগুলোর ধরন ধারণ
মাত্রা মানে না

আমার মতো মুখপোড়ারা মুচকি মুচকি হাসি,
যেখানে যাই, যাতায়াতে হাসিই ভালোবাসি ৷

বলবে হয়তো, তুমিও তো ভাই 
হাসতে হাসতে ঘামো;
দুনিয়াজুড়েই আছে নাকি 
ঘামাঘামির ব্যামো !

কাস্তে খানাও ঘামে,
আমার গাড়ি 
ইচ্ছে হলেই
সেথায় গিয়ে থামে ৷

ক্ষেতের পাশে বসি,
অনন্ত এই যাত্রাপথে ঘামের হিসেব কষি ৷

যখন আমি কলকাতাতে আসি,
হাসির খোঁজেই ব্যস্ত হাজার
সবাই তবু ভীষণ ব্যাজার
কেউ কি দেখে, আমি-ই কেমন 
না-কারণেই হাসি ৷

নিজেই নিজের পিঠ চাপড়াই,
সুযোগমতো যুক্তি সাজাই,
নিজে নিজেই উৎসাহ দিই~
চলুক হাসাহাসি !

কী উদ্ভট কবি রে ভাই,
হাসতে হাসতে কোঁকাই,
না আছে ভূত, না ভাবীকাল....
থেকে গেলাম বোকাই ?

৷৷ আনন্দ ৷৷


০৪-০৮-২০১৮, সাঁতরাগাছি 



No comments:

Post a Comment

অভাবী পেটের কথা তপন মণ্ডল অলফণি

অভাবী পেটের কথা তপন মণ্ডল অলফণি খিদেগুলো বড্ড বেশি করে বাসা বাঁধছে আমার অভাবী পেটে / বাঁহাতি যোগ্যতায় লাল ফিতের বাঁধনে হলুদ সার্টিফিকে...