বৃহস্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০

কিছু বই কিছু কথা || নীলাঞ্জন কুমার || মৃৃৃণালেন্দু দাশ~ অহল্যা কন্যা আমার

কিছু বই কিছু কথা । নীলাঞ্জন কুমার 

অহল্যা কন্যা আমার । মৃণালেন্দু দাশ ।পরিবেশক- পাতিরাম । ছয় টাকা ।

১৯ ৮৩-৮৪ সালের রচনা সমৃদ্ধ ও১৯৮৬ সালে প্রকাশিত মৃণালেন্দু দাশের প্রথম কাব্যগ্রন্থ ' অহল্যা কণ্যা আমার' -তে প্রথম কবিতার শেষ লাইনে এসে তিনি লেখেন ' আমার অহল্যা মাকে গ্রহণ করো পণহীন পায় ! 'এর উচ্চারণের জন্য  তখন তাঁর কাছে কবিতার ক্ষেত্রে অনেক বায়না থেকে যায় । অত্যন্ত ভালো কিছু কবিতা নিয়ে এ গ্রন্থ অন্য আবেদন রেখে  যায়, যেমন: ' ভিতরে ছড়ানো রেনুর উপর/ কোনদিন দেখতে পাওনি/  নরম রোদ্দুর কি রকম দেখায় , ( 'এখানে না এলে ') , ' তবে কেন উদাসীন সময়ের কাছে/ চাও ফিরে আসা ।' ( 'উদাসীন সময়ের কাছে ) ।
             কবি তাঁর কবিতায় বেশ কিছু সামাজিক ত্রুটির কথা উল্লেখ করেছেন । করেছেন টোটেম ট্যাবুর ওপর । পণরীতি  মানবিক মূল্যবোধ ও বিশ্বাস ইত্যাদির সামনে দাঁড়িয়ে তিনি তাঁর উচ্চারণ করেছেন : 'ক্রমাগত গাছের জন্ম দাও/ বিশ্বাসের বিশাল গাছ । ' ( ' অবিমিশ্র বাতাসে দ্বিধান্বিত সময়) । কিংবা,  ' দেবতা মানুষ হয় ভালোবাসা  বিলোতে বিলোতে ।' ( ' কাছে এলে প্রিয় মানুষ ')।-র মাধ্যমে তিনি নিজেকে চিনিয়ে দেন ।
                 ছোট ছোট কবিতার মাধ্যমে তিনি আলাদা আলাদা মেসেজ ছেড়ে গেছেন । আনন্দ লাগে যখন প্রায় তিরিশ চল্লিশ বছর আগের কাব্যগ্রন্থ নিয়ে ভাবনা করি তখন এমন বই সামনে এলে । বিশ্বজিৎ মন্ডলের প্রচ্ছদ  জীবনের অস্থিরতাকে চিন্হিত করে ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

আটপৌরে কবিতা ৮৫-৮৭ || অলোক বিশ্বাস || "আই-যুগ"-এর কবিতা

আটপৌরে কবিতা : অলোক বিশ্বাস ৮৫. কোভিড হস্পিটাল ছাড়িয়ে ভালোবাসা লেখা গাড়ি পড়েছে দাঁড়িয়ে ৮৬. লিখছি কোভিড ডায়রি বারেবারে পেন ফস্কে যাচ্ছ...