Wednesday, May 27, 2020

প্রভাত চৌধুরী || সৌমিত্র রায়-এর জন্য গদ্য- ২৫ || ধারাবাহিক গদ্য

সৌমিত্র রায়-এর জন্য গদ্য
প্রভাত চৌধুরী

২৫.
এখন ২৪ বৈশাখের কথা। ১৪০১ বঙ্গাব্দের ২৪ বৈশাখের কথা। ১৪০০ বঙ্গাব্দের ২৪ বৈশাখ ছিল কবিতাপাক্ষিক পত্রিকাটির আনুষ্ঠানিক প্রকাশ। ঠিক তার এক বছর পর কবিতাপাক্ষিক প্রকাশনার শুরুর দিন।

পত্রিকা থেকে প্রকাশনায় কেন আসলাম এটা তো জানাতে হবে। প্রথম কথাটি হল --- এই এক বছরে যেসব নতুন বা পুরোনো কবি একত্রিত হয়েছে তাদের কবিতার একটা আউটলেট চাই। মনে রাখবেন তখন কিন্তু আমার নিজস্ব আউটলেটের প্রয়োজন পড়েনি। আমি সেই এক বছরে মোট ছ-টি কবিতা লিখেছিলাম। সেই ছ-টি কবিতা-কে মূলধন করে আগের বই ' প্রভাত চৌধুরী  প্রণীত প্রভাত চৌধুরী '-র কিছু কবিতা যুক্ত করে সমীরণ মজুমদারের সমর্থনে ওর অমৃতলোক প্রকাশনা থেকে আমার ' সাদাকথা ' প্রকাশিত হয়ে গেছে। আমার বাসনা হয়েছিল কবিতাপাক্ষিক পরিবারের নিজস্ব একটা প্রকাশনা থাকুক।

আরো একটা কথা তখন বলতাম : কাকেরা কাকের মাংস খায় না। কিন্তু কবিরা কবিদের মাংস খায়। অর্থাৎ কবিদের টাকায় বই ছাপিয়ে একটা নির্দিষ্ট মুনাফা রাখা। যে টাকায় তার জীবিকা। আমি চেয়েছিলাম এই প্রথার অবসান হোক। যা খরচ হবে ঠিক সেই টাকা-ই নেওয়া হবে বইপ্রকাশ বাবদ। এরপর মৌচাকে ঢিল পড়লে যা হয় ঠিক তা-ই হয়েছিল।এখন সেসব কথা থাক।

এখন একটা স্বীকারোক্তি করতে চাইছি।তা হলহল এই যে একসঙ্গে দশটি বই প্রকাশ এর পরিকল্পনাটি ছিল শ্যামলবরণ সাহা-র বাকচর্চার অনুপ্রেরণাজাত। শ্যামলবরণ বর্ধমানের অনেক কবির এক ফর্মার কবিতার বই প্রকাশ করেছিল একক প্রচেষ্টায়। আর আমরা তো এক পরিবার। শ্যামলবরণ একা পারলে আমরা কেন পারব না ?
আমরাও পেরেছিলাম। প্রমাণ করেছিলাম আমরাও পারি। কবিপত্রকালে তো আমি প্রায় একক পরিশ্রমে এবং পরিকল্পনায় বেশ কিছু বই প্রকাশ করেছিলাম এই যে একসঙ্গে দশটি বই প্রকাশ এর পরিকল্পনাটি ছিল শ্যামলবরণ সাহা-র বাকচর্চার অনুপ্রেরণাজাত। শ্যামলবরণ বর্ধমানের অনেক কবির এক ফর্মার কবিতার বই প্রকাশ করেছিল একক প্রচেষ্টায়। আর আমরা তো এক পরিবার। শ্যামলবরণ একা পারলে আমরা কেন পারব না ?
আমরাও পেরেছিলাম। প্রমাণ করেছিলাম আমরাও পারি। কবিপত্রকালে তো আমি প্রায় একক পরিশ্রমে এবং পরিকল্পনায় বেশ কিছু বই প্রকাশ করেছিলাম। কাজেই ভয়-কে জয় করে পৌঁছে গেলাম ২৪ বৈশাখ ১৪০১ । এবং কলকাতার ঐতিহ্যমণ্ডিত প্রেস ক্লাবে।কবিতাপাক্ষিক প্রথম গ্রন্থমালা সিরিজের প্রকাশ অনুষ্ঠানে। তখনকার  একমাত্র এসি অডিটোরিয়ামে।
 কোন কোন বই প্রকাশিত হয়েছিল তার তালিকা আগেই দিয়েছিলাম।
সিরিজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছিলেন অগ্রজ কবি আলোক সরকার।
কবি পবিত্র মুখোপাধ্যায়-এর হাত থেকে প্রথম কয়েকটি কপি কিনেছিলেন দীপঙ্কর সরকার গোপাল আচার্য নয়ন রায় সুশীল ভৌমিক ডা: নীলাদ্রি বিশ্বাস অরূপ পান্তী ।ছিল কবিতাপাঠ ।সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেছিলেন দেবাশিস রায়চৌধুরী। ভাবতে পারেন কলকাতা প্রেস ক্লাবের ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন  কবি সুশীল ভৌমিক । এসেছিলেনবহরমপুর থেকে ।

No comments:

Post a Comment

পূরবী-৩৬ || অভিজিৎ চৌধুরী || ধারাবাহিক উপন্যাস

পূরবী(৩৬)  অভিজিৎ চৌধুরী। হুগলির গঙ্গা আর মা যে"ন মিলেমিশে রয়েছে তীর্থের স্মৃতির খাতায়।এখন খুব বিতর্ক হচ্ছে কোন ভাষা ক্লাসিকাল তা নিয়ে।...