Monday, August 3, 2020

কিছু বই কিছু কথা || নীলাঞ্জন কুমার || ধারাবাহিক বিভাগ

কিছু বই কিছু কথা । নীলাঞ্জন কুমার

ডাক দাওনি কতকাল ভালোবাসা । অঞ্জন সিকদার । কবিতিকা । পঁচিশ টাকা ।

ঝাঁ চকচকে শহুরে রেস্তরাঁর প্রেম প্রেম ভাব যারা ভালোবাসেন, তাদের জন্য যদিও অঞ্জন সিকদারের কাব্য পুস্তিকা  ' ডাক দাওনি কতকাল ভালোবাসা ' নয়, এর জন্য বাড়তি কিছু লাগে যার নাম মগ্নতা । ' এই অপেক্ষা থাক।/  এই আশঙ্কা থাক। / এই দোলাচল থাক । এই হ্ঋদ যাতনা থাক । / তুমি আসবে বলে/  এই প্রেম পীড়ন উৎসব থাক । ' ( ' এই  হ্ঋদ পীড়ন থাক) নয়তো, '  দৃশ্যপটে কেউ নেই/  সব মুছে গেছে/  জেগে আছো শুধু তুমি/ তুমি/ ছোট্ট পাখি ! ' (তুমি, ছোট্ট পাখি ' ) -র মতো  স্বতস্ফূর্ত কবিতার  কাছে গেলে বোঝা যায় তা মননে মিশে কতখানি দামী হয়ে উঠেছে ।
          অঞ্জনের কবিতা কোন কাব্য ব্যকরণ দিয়ে ধরা যায় না । ভুল হবে তার মধ্যে কপিবুক কিছু ধরে সমালোচনা করলে । কারণ তিনি যা দেখেন,  যা বোঝেন, তাকেই লেখেন,  আর তা কবিতায়  রুপান্তরিত  হয় । এর জন্য তাঁকে শিখতে হয় না মুন্সিয়ানা । কবিতার  ডিকসন আপনি আপনি গড়ে ওঠে । শব্দচয়ন যেমন তেমন ভাবে গড়ে উঠলেও  রক্তে সংবহিত হয় । এসব দেখেশুনে  কলাকৈবল্যবাদীদের কাছে তিনি          '  অশিক্ষিত কবি ' হতেই পারেন ।
               কিন্তু অশিক্ষিতের কাছেও যে শিক্ষা নেবার আছে তা অঞ্জন বুঝিয়ে দেন । আর সেজন্য স্তব্ধ হতে হয়  এই পংক্তির সামনেদাঁড়িয়ে:  ' তুমি এলে বলেই  / এই আমি কৃপণ কঞ্জুষ / বসে আছি হাটপাট খুলে দরজা/  বেবাক বাউল / এসো ।' ( ' তুমি এলে বলেই ')। কবির  ভালোবাসার কবিতার  ভেতরের ভালোবাসা ছড়িয়ে পড়েছে তার এই পুস্তিকায় । একে তো দাম দিতেই হবে ।

No comments:

Post a Comment

সবাই মিলে সিনেমা হলে (১৪) || কান্তিরঞ্জন দে || কিভাবে সিনেমা " দেখব ?"

  সবাই মিলে সিনেমা হলে (১৪) কিভাবে সিনেমা "  দেখব ?"        সত্যি সত্যি যদি সিনেমার রূপ রস দৃশ্যসুখ উপভোগ করতে চান, তাহলে আগ্রহের ...