Friday, September 4, 2020

সৌমিত্র রায় - এর জন্য গদ্য ১২৩ || প্রভাত চৌধুরী || ধারাবাহিক গদ্য

সৌমিত্র রায় - এর জন্য গদ্য
প্রভাত চৌধুরী


১২৩.
আজকের লেখায় বিশেষ কোনো নবীন কবির কথা লিখছি না। লিখছি কবিতাপাক্ষিকের পরীকল্পনার কথা।
এই পক্ষের ভাবনা দিয়ে  শুরু হত পত্রিকা।
প্রথম সংখ্যায় এই পক্ষের ভাবনা লিখেছিলেন অগ্রজ কবি প্রণবেন্দু দাশগুপ্ত।
প্রসঙ্গ : সম্পাদনা বিষয়ে কৃত্তিবাস সম্পাদনা প্রসঙ্গে লিখেছিলেন অতীত- সম্পাদক সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়। সে সময় কৃত্তিবাস বন্ধ ছিল।
কবিতা পাক্ষিক প্রশ্ন করেছিল : কৃত্তিবাস প্রকাশ বন্ধ করেছিলেন কেন ?
সুনীলদার উত্তর ছিল : কৃত্তিবাস প্রকাশ নানা আকারে বহুদিন চলেছে। প্রায় ৩৫ বছর ।তার চেয়ে আর বেশিদিন চালাবার দরকার কী ?
সুনীলদা পাল্টা প্রশ্ন দিয়ে বলতে চেয়েছিলেন কোনো সাহিত্যপত্রিকা বেশিদিন চালাবার প্রয়োজন নেই। পরবর্তীতে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় নিজ-বক্তব্য থেকে এসেছিলেন কেন , তার উত্তর দেবার দায় আমার নয়। সুনীলদার ছিল।
আমরা ঠিক করেছিলাম সদ্য প্রয়াত কবিদের সম্পর্কে চার-সংখ্যার ধারাবাহিক ছাপা হবে। প্রথম চার সংখ্যা বরাদ্দ হয়েছিল দীপক মজুমদার সম্পর্কে। এই মূল্যবান লেখাটি লিখেছিলেন সুনেত্রা ঘটক। লেখাটির নাম ছিল : দীপক মজুমদার : আঁচড়ের সন্ধানে।
সুনেত্রা ঘটক লিখেছিলেন :
শুধু কবিতা নয় , দীপকদার গদ্যের মধ্যেও এমনকী জীবনযাপনের মধ্যেও , এমন বহু আঁচড়ের সন্ধান পাওয়া যায়।
তখন নবীন-প্রবীণের মিশ্রণে গঠিত হত কবিসূচি। একনজরে দেখে নেওয়া যাক।
অগ্রজদের মধ্যে ছিলেন : তারাপদ রায় , রত্নেশ্বর হাজরা , হৃষীকেশ মুখোপাধ্যায় , দেবী রায় ।
আর তরুণদের মধ্যে ছিলেন :
শান্তিময় মুখোপাধ্যায় , মুহম্মদ মতিউল্লাহ্ , নিয়াজুল হক , অলোক বিশ্বাস , অজিত মিশ্র , সমর সুর , সত্যসাধন চেল , সব্যসাচী সরকার , গৌতম চট্টোপাধ্যায় , দীপশিখা পোদ্দার , অমলেন্দু ভট্টাচার্য ।
বাংলাদেশের কবিতা পর্বে ছিল :
সুব্রত অগাস্টিন গোমেজ এবং ফরিদ কবির -এর কবিতা।
অনুবাদ করিতা :।ওক্ তাভিও পাজ -এর দুটি কবিতা।
একটির অনুবাদক : রবিশংকর বল। অন্যটির ইন্দ্রনীল চক্রবর্তী।
ভারতীয় কবিতা/ তেলেগু কবিতার অনুবাদ করেছিলেন কমলেশ সেন ।একজন কবির নাম : কে ভি আর । অন্য জনের নাম জানা যায়নি ।
শ্যামলবরণ সাহা-র  সাঁইত্রিশ নম্বর কালনা রোড কাব্যগ্রন্থটির আলোচনা করেছিল কাননকুমার ভৌমিক।
তাছাড়া ছিল : কবিতাসংবাদ।সংবাদদাতা : সুজিত হালদার।
একটি এক ফর্মা + চার পৃষ্ঠার পত্রিকায় এর থেকে বেশি আর কীই বা দিতে পারতাম ?
প্রশ্নটা নিজেকেই করলাম

No comments:

Post a Comment

ব্যক্তিত্ব || এক ভিন্ন আঙ্গিকের শিল্পী নরসিংহ দাস || নিজস্ব কলম

ব্যক্তিত্ব || এক ভিন্ন আঙ্গিকের শিল্পী নরসিংহ দাস || নিজস্ব কলম মেদিনীপুর শহরের বাসিন্দা, ভূগোল শিক্ষক, মহিষাগেড়্যা এ. এম. এ. হাই মাদ্রাসা ...