বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২০

সৌমিত্র রায় -এর জন্য গদ্য ১৭৮ || প্রভাত চৌধুরী || ধারাবাহিক গদ্য

সৌমিত্র রায় -এর জন্য গদ্য

প্রভাত চৌধুরী



১৭৮.

সোনালি বেগম -এর কবিতাপাক্ষিক কেন্দ্রিক আত্মকথার কিছু অংশ পড়তে থাকুন :

' আমার কবিতালেখার দ্বিতীয় ইনিংস শুরু হয়েছে কবিতাপাক্ষিকের আবির্ভাবের পর। একটু একটু করে লক্ষ করলাম কবিতার আলোর বিরল ঝলকানিতে কবিতাপাক্ষিক তার তোরণদ্বার খুলে দিয়েছে । তার মধ্য দিয়ে যতদূর ইচ্ছে চলে যাওয়া যায় । কবিতাপাক্ষিক-কে মনে হয়েছে এক স্বপ্নদিগন্তের অশ্বারোহী । সে পশ্চিমবঙ্গ থেকে অনেক দূরের বাঙালিদের মনেও কবিতার স্বপ্নকে সঞ্চারিত করতে পেরেছে । যেন এক নতুন বেগ সঞ্চারিত হল আমার মধ্যে। বেশ কিছু কবিতা লিখে ফেললাম যা কোনো- মতেই আমার আগের কবিতাগুলির মতো নয়।'

 সোনালি বেগম -এর ব্যক্তিগত পরিচয় জানানোটা খুব একটা জরুরি মনে না হওয়ায় জানালাম না।

গোপাল আচার্য এক বিরল প্রজাতির মানুষ । ভিন্ন প্রকৃতির কবি। সুজিত হালদার সূত্রে কবিতাপাক্ষিক- এর সঙ্গে যোগাযোগ। আর সেই সূত্রেই কবিতায় অনুপ্রবেশ।

গোপাল আচার্য তাঁর কবিতাপাক্ষিককথায় লিখেছিলেন :

' আমার কবিতাচর্চার প্রায় সমস্তটাই কবিতাপাক্ষিক কেন্দ্রিক । কবিতাপাক্ষিকের বাইরে আমার কবিতা কম প্রকাশিত হয়েছে ... সময়ের অভাব /উদ্যোগের অভাবে ।কবিতাপাক্ষিকের জগতে এসে আমি অনেক শিখেছি ... দৃষ্টি প্রসারিত হয়েছে ভুবন জুড়ে... কবিতার হাল হকিকৎ সম্পর্কে জ্ঞান বেড়েছে যথেষ্ট।'

' আজ কবিতাপাক্ষিক একটা বিশাল প্রতিষ্টান। অমুক বিখ্যাত বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের কাগজে কবিতা লেখার চেয়ে , আমি কবিতাপাক্ষিকে কবিতা লিখি বলাটা বেশি গৌরবের।'

কবিতাপাক্ষিকের আত্মজন গোপাল আচার্য জানিয়ে ছিলেন তাঁ ব্যক্তিগত অভিমত। আপনাকে তার মান্যতা দিতে হবে , এটা বলতে যাব কেন !

রামকিশোর ভট্টাচার্য আটের দশকের বিশিষ্ট কবি তথা কবিতাপাক্ষিকের আত্মজন। 

রামকিশোর তার কথায় জানিয়েছিল : 

'  কবিতাপাক্ষিক ' বর্তমানে সে- রকম কাগজ যা বাংলা পত্রিকা-সমাজে নতুন ভাবনা মেলে ধরেছে। যাকে আমি তথাকথিত লিটল ম্যাগাজিন বলতে রাজি নই। বরং যদি প্রতিপত্রিকা বা সমান্তরাল কাগজ বলা যেতে পারে। যেখানে যত শব্দের আশ্চর্য কাণ্ড তার অনেকটাই আসে এখানে। কবিতা এক ধরনের ব্যাধি। এই ব্যাধি ছড়ানোর এক উৎকৃষ্ট মাধ্যম কবিতাপাক্ষিক। ফলে এর নিন্দুকের সংখ্যাও প্রচুর । আমি চাই আরো নিন্দা বৃদ্ধি হোক । আরো বিতর্ক। তবু কবিতাপাক্ষিক পরিবারের লেখকপাঠকদের কাছে একটা অর্জন , আশ্রয় ।'

রামকিশোর তার রচনাটির উপসংহারে লিখেছিল :

' এক অদ্ভুত ফোকাসের আলোয় আলোকিত এই পরিবার আরো বহুদিন প্রেরণার গান গেয়ে যাবে। কবিতা যতদিন কবিতাপাক্ষিক পরিবারের প্রভাও ততদিন। একখনোই কষ্টকল্পনা নয়। এ পরিবারে কোনোদিন রাত্রি নামবে না। '

আত্মজনকথা চলতেই থাকুক।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

অবহেলা || দীপক মজুমদার || অন্যান্য কবিতা

অবহেলা দীপক মজুমদার আর গোপন রাখব না আমাদের সম্পর্কের ইতিবৃত্ত।  শব্দের খাঁজে লুকানো গোলাপের উষ্ণতা। ঝাউবনের নির্জনতায় জৌলুস সম্পৃক্তি। প্রি...