শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০

কিছু বই কিছু কথা । নীলাঞ্জন কুমার শূন্যসংগত । সুমিতা বন্দ্যোপাধ্যায় । সেলিব্রিটি । কুড়ি টাকা ।

কিছু বই কিছু কথা । নীলাঞ্জন কুমার 



শূন্যসংগত । সুমিতা বন্দ্যোপাধ্যায় । সেলিব্রিটি । কুড়ি টাকা ।



যাঁরা মহিলা এবং কবিতা নিয়ে মগ্ন থাকতে ভালোবাসেন,  তাঁদের কবিতা নিয়ে বহুলাংশে ' মেয়েলি' শব্দটি অনেকেই জুড়ে দেন । এই নিষ্ঠুর অপমানজনক  শব্দের ভেতর বন্দি থাকতে ভালোবাসেন অনেক নারী কবি। তারা লিখে চলেন পুরনো আমলের কবিতার অনুপ্রেরণায় কবিতা,  বর্তমানে অবশ্য এসেছে যৌনতা, কিংবা নারীবাদী উচ্চগ্রামের কবিতা । পাশাপাশি যাঁরা তার বাইরে গিয়ে ব্যতিক্রমী দিক ফুটিয়ে তুলে ধরেছেন তাঁদের মধ্যে কবি সুমিতা বন্দ্যোপাধ্যায় অন্যতম । তা জানান দেয় তাঁর ' শূন্যসংগত ' কাব্যগ্রন্থে : ' ঝেঁপে কালো হয়ে এলো এক ফর্মা দু-  ফর্মা / ব্যর্থ শোক ' ( দৃষ্টি)  , ' বখে গেল সব শান্ত আলোয় অনুশীলনরত সকাল ' ( এমারজেন্সি লাইট)  , ' কান্না ব্যক্তিগত  / নিচু ডালে সর্বশেষ পাতার পেছনে লুকোনো ' ( ' লৌহকীট ') এর মতো সমীহ জাগানো তাঁর পংক্তি গুলি তে ।

                সুমিতার এই বইটি কতবার যে পড়ে ফেলেছি ,কি এক অদৃশ্য টান আছে বইটির ভেতরে!  প্রতিটি কবিতা থেকে উৎসর্গীকৃত কাব্যচেতনা ধাবিত হয় রক্তে । নেশা জাগে কবিতা গঠনের নেশা । 

                দুঃখ,  ইদানিং তাঁর কবিতা পাওয়া যাচ্ছে না । এ ধরনের অসাধারণ কবিরা কেন যে নিঃস্তব্ধ হয়ে যান,  মাঝে মধ্যে মনে হলে দুঃখ লাগে । দশ বছর আগের প্রকাশিত এই কাব্যগ্রন্থে সংযত কবিতাগুলির ক্ষেত্রে প্রশংসা করা ছাড়া পথ থাকে না । পিপাসা গুপ্তের সাধারণ প্রচ্ছদ বইটির পক্ষে সুপ্রযুক্ত । বইটি প্রকাশের জন্য প্রকাশকও ধন্যবাদার্হ ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

সবাই মিলে সিনেমা হলে ২১ || সিনেমা ও বিরতি || কান্তিরঞ্জন দে

  সবাই মিলে সিনেমা হলে ( ২১) সিনেমা ও বিরতি  কান্তিরঞ্জন দে        নমস্কার ।  উৎসবকালীন বিরতির পর আবার ফিরে এলাম । আমরা যখন সবাই মিলে সিনেমা...