বৃহস্পতিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২০

সৌমত্র রায় -এর জন্য গদ্য ২১৩ || প্রভাত চৌধুরী || ধারাবাহিক গদ্য

সৌমত্র রায় -এর জন্য গদ্য

প্রভাত চৌধুরী





২১৩.

এবার কবিতাপাক্ষিক ৩০০ -র সূচিপত্র বা সূচি-র পাতাটি দ্যাখা যেতে পারে।  কোন ৪২১ জনের কবিতা স্থান পেয়েছিল , সেটা জানানো যাক। না , ভয় পাবেন না। আমি কিছুটা নমুনা দেবার চেষ্টা করছি। প্রথমেই জানিয়ে রাখছি আমরা সূচিপত্রটি বানিয়েছিলাম বর্ণানুক্রমিক । মানে অ-এর পর আ। অথচ কবিতা- বিন্যাসের ক্ষেত্রে প্রকাশের তারিখ বা সংখ্যা অনুযায়ী।

এই ফাঁকে একটা জরুরি তথ্য জানিয়ে রাখি , কবিতাপাক্ষিক -এর পর যে বড়ো করে সংখ্যা দেবার সিদ্ধান্তটি গ্রহণ করেছিলাম শিল্পী পৃথ্বীশ গঙ্গোপাধ্যায়

-এর সুপারিশ বা পরামর্শ অনুসারে। পৃথ্বীশ সম্পর্কে  হরেকরকম ছবি বা ছবির গল্প সেভাবে লেখা হয়নি। লিখতে হবে। এখন লিখছি ৩০০-কথা।

সূচিপত্রে ছিল :

অরুণ মিত্র ৬৬   অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত  ৫৭ অমিতাভ দাশগুপ্ত ১৪২ 

অর্থাৎ আগে কবির নাম , পরে পৃষ্ঠা সংখ্যা।

কিন্তু কবিতা-বিন্যাসের ক্ষেত্রে :

অরুণকুমার চট্টোপাধ্যায়   ২ ॥ ২২.০৫ .৯৩

প্রণব পাল ৩ ॥ ১২ . ০৬. ৯৩

এখানের বিন্যাসে বোঝানো হয়েছিল কবিতাটি কোন সংখ্যায় এবং কবে, বা প্রকাশ তারিখ  , প্রকাশিত ।

যেমন অরুণকুমার চট্টোপাধ্যায়ের কবিতাটি কবিতা- পাক্ষিক -এর দ্বিতীয় সংখ্যায় ২২ মে ১৯৯৩ -এ প্রকাশিত হয়েছিল। 

তার পরেই ছিল প্রণব পাল - এর কবিতা। কবিতাটি কবিতাপাক্ষিক ৩ -এ ১২.০৬.১৯৯৩ -এ প্রকাশিত।

এখন আপনার হয়ত বাসনা হল , আপনি দেখতে এবং পড়তে চাইছেন সুদীপ বসু-র কবিতাটি। আপনাকে যেতে হবে স-এ। সেখানে সিদ্ধেশ্বর সেন সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় সুধেন্দু মল্লিক সমীর রায়চৌধুরী  সুশীল ভৌমিক সৈয়দ খালেদ নৌমান সন্তোষ সিংহ সুধাংশু সেন সুনির্মল কুণ্ডু সমীর চট্টোপাধ্যায় সোমনাথ মুখোপাধ্যায় সুবিমল বসাক সুবোধ সরকার সৈয়দ কওসর জামাল সুজিত সরকার  সমীরণ মজুমদার সত্যজিৎ সেন সঞ্জীব প্রামাণিক সুব্রত রুদ্র সুরজিৎ ঘোষ সুব্রত সরকার সুব্রত পাল সন্দীপ বিশ্বাস স্বপন দত্ত স্বপন দত্ত সুবীর ঘোষ সার্থক রায়চৌধুরী সাইফুল্লাহ্ মাহমুদ দুলাল সমরেন্দ্র দাস সঞ্জয় বন্দ্যোপাধ্যায় সত্যপ্রিয় মুখোপাধ্যায় সোনালি বেগম ৷

যখন সুদীপের কবিতাটি দেখলাম / পড়লাম , তখন এই লেখার পাঠকদেরও পড়ানোর বাসনা হল। থো এক পৃষ্ঠার কবিতা। তা থেকে আমার পছন্দ মতো কয়েকটি লাইন উদ্ধৃত করছি :

' ৩টে লোক ধরো x, y , z বৃষ্টি মাথায় করে দৌড়ে যাচ্ছে / ৩টে লোক স্টেডিয়ামের ছায়ায় দাঁড়িয়ে ১০ রকমের/ স্বপ্নকে ছুঁতে চায় / আমি কারো ওইসবে বিষ মিশিয়ে দিতে চাইনি কখনো---'

এখন আবার ফিরে যাই সূচিপত্রে।  সুদীপ-এর পরে যে নামগুলি ছিল  ' স ' আদ্যাক্ষরে , সেই নামগুলিও দেখে নেওয়া যাক :

সন্দীপ লাহা সৈয়দ হাসমদ জালাল সঞ্চয়িতা কুণ্ডু সত্যসাধন চেল সুব্রত চেল সমরেশ মুখোপাধ্যায় সুমিতেশ সরকার সৌমিত বসু সাম্যব্রত জোয়ারদার সব্যসাচী ভৌমিক স্বরূপ চক্রবর্তী সুস্নাত জানা সৌমিত্র রায় সমরেন্দ্র রায়  সব্যসাচী রায়চৌধুরী সৌম্যজিৎ আচার্য সুকান্ত সিংহ সন্দীপ কুমার সার্থক সিংহ সৌমেন চট্টোপাধ্যায় সুমিতা বন্দ্যোপাধ্যায় সায়ন্তন ঠাকুর স্বরূপ চন্দ স্নেহাশিস মুখোপাধ্যায়  সৌমনা দাশগুপ্ত সুদীপ্ত মোহান্ত সেখ আজেহার সুদেব বক্সী স্নেহাশিস সৈয়দ সুশীল হাটুই সুভাষ রবিদাস সেলিম মল্লিক সুজিত দাস সোম মুখোপাধ্যায় সুদক্ষিণা বসু।

হ্যাঁ , আপনি ঠিকই অনুধাবন করতে পেরেছেন আমি কিন্তু সূচিপত্র-র একটি বড়ো অধ্যায় আপনাদের পড়াতে বা জানাতে সক্ষম হলাম । সেই অধ্যায়ে আজকের বিপ্লবী বা আমার বিরোধীরা কিন্তু কবিতা-পাক্ষিকের ওপরই নির্ভরশীল ছিল। বলার কথা হল : আমি কাউকেই ছুটি করে দিইনি , তাঁরা নিজেরাই মুক্ত হয়েছে। 

এই প্রসঙ্গে বলার কথা হল কোনোদিন আমার আশপাশটা ফাঁকা মনে হয়নি। নতুন সঙ্গী এসে গেছে। আমি নতুন বন্ধু পেয়ে ধন্য হয়েছি। সব সময়। সর্বদা।



কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

কিছু বই কিছু কথা ২৬০। নীলাঞ্জন কুমার তিরিশে ফেব্রুয়ারি । অনিন্দ্য রায়

  কিছু বই কিছু কথা  ২৬০। নীলাঞ্জন কুমার তিরিশে ফেব্রুয়ারি । অনিন্দ্য রায় । এখন বাংলা কবিতার কাগজ ও জার্নি 90S-এর যৌথ উদ্যোগ । পন্ঞ্চাশ টাকা...