মঙ্গলবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২০

কিছু বই কিছু কথা ২৩৮ । নীলাঞ্জন কুমার || নিরাময় শীত । সুভদ্রা ভট্টাচার্য । মহাপৃথিবী

কিছু বই কিছু কথা  ২৩৮ । নীলাঞ্জন কুমার




নিরাময় শীত । সুভদ্রা ভট্টাচার্য । মহাপৃথিবী । ছয় টাকা


কবি সুভদ্রা ভট্টাচার্যের বহু কবিতা ইতিউতি পড়া থাকলেও গ্রন্থিত কবিতা এর আগে পড়া হয়ে ওঠেনি। হাতের সামনে তাঁর ১৯৮৪ সালের কাব্যগ্রন্থ ' নিরাময় শীত ' পেয়ে  আদ্যোপান্ত পড়ে বুঝতে পারি  কোনোভাবে  তিনি স্রেফ মেয়েলী কবিতা লিখে সময় কাটান না । তাই পেয়ে যাই:  ' শুধু তোলপাড় করে উঠে আসছে নিরাময় শীত ' / বল্গা হরিণের চোখের মতো অবিশ্বাসী শিকারির দিকে ।' ( নিরাময় শীত)  , ' রেটিনার দু-পাশ থেকে শিরাগুলো শুকিয়ে আসছে,  / রেটিনাতে কারা কড়া নাড়ছে,  / সময়টা এখন দুপুর ' ( ' সময়টা এখন দুপুর ')
বোঝায় তাঁর কাব্যিকতা দীর্ঘ বিস্তার লাভ করে সৃজনগত পরিশিলিতার কারণে । কবি এখনো লেখালিখি করে চলেছেন সমানভাবে ।
              কবির এ কাব্যগ্রন্থ মননকে তৃপ্ত করতে সমর্থ কারণ তাঁর পংক্তির উচ্চারণ এক দিগন্তরেখা থেকে আর এক দিগন্তে ধাবমান বলে । তাই যখন তিনি:  ' কালো পাহাড়ের ওপারে মনুষ্য রমন অথবা রমনীর/  শরীর ভাঙতে ভাঙতে শিল্পীর হাতুড়ি দুলছে হাওয়ায় ', ( পর্যটক)   ' এর মতো  পংক্তি গঠন করেন তখন তাঁকে সাবাশি দিতেই হয় । সে অর্থে কবি সুভদ্রা ভট্টাচার্য তাঁর কবিতা পড়ার ক্ষেত্রে আগ্রহ বাড়িয়ে তোলেন ।কবি পবিত্র মুখোপাধ্যায়ের প্রচ্ছদ মন টানে না ।



কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

বিদেহ নন্দিনী || ডঃমালিনী || মূল অসমিয়া থেকে বাংলা অনুবাদঃ বাসুদেব দাস || Bideha Nandini- 20

বিদেহ নন্দিনী ডঃমালিনী  মূল অসমিয়া থেকে বাংলা অনুবাদঃ বাসুদেব দাস    (বিশ) চিত্রকূট ছেড়ে আসার পর থেকে দুর্ভাগ্য আমাদের পিছু ছাড়ছে না। মাঝ...