শনিবার, ২ জানুয়ারী, ২০২১

কিছু বই কিছু কথা ২৪২ । নীলাঞ্জন কুমার || আত্মস্বর কিছুতেই চাপা থাকছে না । পার্থপ্রিয় বসু

কিছু বই কিছু কথা ২৪২ । নীলাঞ্জন কুমার 



আত্মস্বর কিছুতেই চাপা থাকছে না । পার্থপ্রিয় বসু । চিত্রক পাবলিকেশন । ত্রিশ টাকা ।

কোন কোন কবি আছেন তাঁরা কোনভাবে নিজের কবিতা বিকশিত করার ক্ষেত্র গড়ে তুলতে চান না বা তাঁর কবিতা কানাকানি করে বিখ্যাত করে দিতে পারে তা বিশ্বাস করেন  না । আড়ালে থাকাই তাদের প্রধান অভ্যাস ।আর এই অভ্যাসে অভ্যস্ত কবি পার্থপ্রিয় বসুর
এগারো তম কাব্যগ্রন্থ ' আত্মস্বর কিছুতেই চাপা থাকছে না ' পড়ে বুঝতে পারি , তিনি আড়ালে থাকলেও  প্রাকৃত পাঠক  তাঁকে খুঁজে নিয়ে পড়বেই । কারণ তাঁর আকর্ষক পংক্তি পাই:  ' বুকে ঘুনপোকা নিয়ে কদিনই বা বাঁচে/  এইসব কাঠের শরীর । ( বৈশাখ-জাতক)  , ' নিঃসঙ্গ আর দুঃসময় শব্দের মধ্যে বসার জন্যেও/ ওর ডাক পড়ছে বারবার...' , ( বিসর্গ)  , ' প্রদোষের আলো লোকটির চুলে,  গালের বাঁ পাশে /  নরম , রঙিন,  স্থির/  কৃষ্ণ হাসে মনে মনে- / দুঃখের কত না রং! ' ( ' চাপ ঠেলে ') ।
         কবি পার্থপ্রিয় বসুর কবিতার শব্দচয়ন  , ব্যঞ্জনা,  দ্যোতনা যে অবস্থানে পৌচেছে তাকে ঈর্ষণীয় বলা যেতে পারে । সময়ের সঙ্গে তাল গুনে তিনি পরিক্রমা করেন আবিশ্ব ও গড়ে তোলেন কবিতা বিন্যাস । কবির প্রায় প্রত্যেক কবিতাতে পাই এক বিশেষ সন্ধান যা ভীষণ স্বাদু ।
              বইটির শিরোনামের সঙ্গে একমত হয়ে বলি,  এ কবির আত্মস্বর কোন ভাবে চাপা থাকবে না কারণ সুগন্ধ আটকানো যাবে না । তাঁর কবিতা পড়লে মনে হয় কবির তেমন কোন ইচ্ছে নেই যে অহেতুক গবেট পাঠক তাঁর কবিতা পড়ুক । সুতনুকা গিরির প্রচ্ছদ ব্যন্ঞ্জনাময় ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নস্টালজিয়া ৩২ || পৃথা চট্টোপাধ্যায় || ন্যানো টেক্সট

  নস্টালজিয়া ৩২ পৃথা চট্টোপাধ্যায় নস্টালজিয়া ৩২ পৃথা চট্টোপাধ্যায়  আমার শৈশবের বেশ কিছুটা সময় কেটেছিল সাগরদিঘিতে। বাবা তখন ওখানে  বিডিও অফিস...