মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২১

অনুবাদ কবিতা ।। হেমাঙ্গ কুমার দত্ত ।। মূল অসমিয়া থেকে বাংলা অনুবাদ -বাসুদেব দাস, 33

অনুবাদ কবিতা 

হেমাঙ্গ কুমার দত্ত

মূল অসমিয়া থেকে বাংলা অনুবাদ -বাসুদেব দাস





বন্দীশালার কবিতা

হেমাঙ্গ কুমার দত্ত

মূল অসমিয়া থেকে বাংলা অনুবাদ -বাসুদেব দাস

এক মুহূর্তের জন্য আমাকে মুক্তি দাও

আমি পরীক্ষা করে দেখতে চাই পৃথিবীকে

জানতে চাই বাইরের মুক্ত পৃথিবী

গোপনে কতটা সংকীর্ণ হয়ে যাওয়ার ফলে

একটি ঘরে পাঠানো হয় এত মানুষকে


এক মুহূর্তের জন্য আমাকে মুক্তি দাও

আমি পরীক্ষা করে দেখতে চাই পৃথিবীকে

সেখানে ব্যক্তি কতটা স্থানু আর জড় বলে

প্রয়োজন নেই তাদের দেওয়ালের


এক মুহূর্তের জন্য আমাকে মুক্তি দাও

আমি পরীক্ষা করে দেখতে চাই পৃথিবীকে

বুঝতে চাই এই বন্দীশালায়

অপরাধগুলি সত্যিই বন্দী কিনা

শাস্তিগুলিই এখানে বন্দী


ধর্মযুদ্ধ

হেমাঙ্গ কুমার দত্ত

মূল অসমিয়া থেকে বাংলা অনুবাদ -বাসুদেব দাস

কখনও ঈশ্বর অনুভব করে

প্রয়োজন তার শোধিত হওয়ার


সময়ের সংক্রমণের সমস্ত প্রলেপ মুছে

পুনরায় একবার নিজেকে উজ্জ্বল করে দেখার


সেদিন ঈশ্বর পৃথিবীতে আগুন জ্বালেন

পৃথিবী জ্বলে পোড়া তাপে শোধিত হয় ঈশ্বর


জীবন্ত দাহ এবং দাহ সংস্কারের পরে

এক টুকরো আগুন ছাই হয়ে মাটির বুকে

(আত্মা স্বর্গে যাক বা না যাক

শরীর ধীরে ধীরে বিলীন পাতালে)

নিচে আগুন নিভতে না চাওয়া শিখা

সুপ্রভ হয়ে ঈশ্বরের ওপরে

(পৃথিবী থেকে তাকালে

কালো ধোয়ার সঙ্গে একসঙ্গে দেখা যায়)


একদিন আগুন নিভে যায়

পুনরায় জেগে ওঠে ঘর রাজপথ বাজার এবং মন্দির


নতুন যুগের আশীষ কামনা করে

জ্বলে উঠে মন্দিরে একটি প্রদীপ


পরবর্তীকালে পৃথিবী জ্বালানোর জন্য

সেই ক্ষুদ্র অস্ত্র ঈশ্বরকে মানুষের উপহার


ভিক্ষা

হেমাঙ্গ কুমার দত্ত

মূল অসমিয়া থেকে বাংলা অনুবাদ-বাসুদেব দাস

আধুলিটা নেবার সময়

তুমি হেসে বললে অনেক পেয়েছ


আধুলিটা দেবার সময়

আমিও ভেবেছিলাম ইস বেশি দিলাম


হিসেবের সমতায়

দেখিয়ে গেলে বাংলোয় পরিবৃত আমার দীনতা


অন্য ইউরেকা

(আর্কিমিডিসের কাছে ক্ষমা প্রার্থনায়)

হেমাঙ্গ কুমার দত্ত

মূল অসমিয়া থেকে বাংলা অনুবাদ -বাসুদেব দাস

আর্কিমিডিস স্নান করা ঘরে কী পেল কী পেল 

রাজমুকুটে ভেঁজালের পরিমাণ?

বড় ভালো হল এখন মুকুটগুলি আরও বেশি মুকুট হবে 

রাজারা আরও বেশি রাজা 


এইবার বেশি সোনায় মুকুট ভারী এবং 

এত ওজন বয়ে বেড়ানো রাজার কাজ নয়


রাজা এবার তাই সিংহাসনে বসে থাকবে রুটিনের বেশিরভাগ সময় 

রাজকবির চোখে দেখবে প্রজার বর্তমান 

যাজকের হাতে নির্মাণ করবে ভবিষ্যৎ

-রাজা এবার বেশি করে রাজা   


রাজা হবে বেশি করে রাজা গুণে বেড়ে 

সংখ্যায় বাড়বে তাঁর রাণী

রাজা এবার পুরোপুরি আইনসম্মত

অন্যের মতো রাজা ভাঙ্গে না পরিবর্তন করে আইন 


রাজা এবার রাজ্যের সীমা পার হয়েও রাজা 

দিগ্বিজয়ই যেহেতু রাজার স্বাভাবিক বিদেশ-ভ্রমণ 

-রাজা এবার বেশি করে রাজা


সমস্যা হল রাজা বেশি করে রাজা হলে 

প্রজা হয়ে পড়ে বেশি করে প্রজা

  

পাব্লিক কল

হেমাঙ্গ কুমার দত্ত

মূল অসমিয়া থেকে বাংলা অনুবাদ-- বাসুদেব দাস


হ‍্যালো কেমন আছ, কেমন আছেন ইনি

মনে পড়ছে খুব– তাই

কতদিন হল সেই তখনই দেখা হওয়া শেষবার


না না, কিছুই জানতে পারিনি

বাঃ সুন্দর, কোথায় ঠিক হল

ভালো খবরতো, ভাগ্যের কথা আজকাল এভাবে


কী বললে, মারা গেছে, কবে, কী হয়েছিল

ইস অকালে, বড় ভালো ছিল

শৈশবে একবার যাবার পরে আমাকে যে, আসতেই  দিচ্ছিল না

বিশ্বাস করা শক্ত, সত্যিই


ঠিক আছে, রাখছি তাহলে

তুমিতো বুঝতেই পারছ

সত্যিই, বেড়ে গেছে কথার খরচ

হাসির খরচ, দুঃখের খরচ,প্রেমের খরচ

সীমিত শব্দ– মিনিটে মেপে–

সীমিত ভাবোচ্ছাস


কবি পরিচিতি--১৯৭৩ সনে অসমের দরং জেলার টংলায়  কবি হেমাঙ্গ কুমার দত্তের জন্ম হয়। পিতা হরিহর দত্ত এবং মাতা  তিলোত্তমা দত্ত।২০০০ সনে তার একমাত্র কাব্য সংকলন' অথবা' প্রকাশিত হয়।২০০২ সনে সংকলনটি মুনীন বরকটকী   পুরস্কার লাভ করে।২০০৬ সনে কবি নিরুদ্দিষ্ট হন।









কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Student Registration (Online)

Trainee REGISTRATION (ONLINE)

                                                                                    👇           👉             Click here for registration...