বুধবার, ৩ নভেম্বর, ২০২১

মহামারি ও নৃ-তত্ত্ব বিদ্যা" সংক্রান্ত ত্রিদিবসীয় আন্তর্জাতিক ওয়েবিনার ।। সংস্কৃতি সংবাদ, Epidemic

"মহামারি ও নৃ-তত্ত্ব বিদ্যা"  সংক্রান্ত ত্রিদিবসীয় আন্তর্জাতিক ওয়েবিনার 



ঝাড়গ্রাম জেলার সেবা ভারতী মহাবিদ্যালয়ের নৃ-তত্ত্ব বিভাগের উদ্যোগে এবং পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সুকুমার সেনগুপ্ত মহাবিদ্যালয়ের নৃ- তত্ত্ব বিভাগের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হলো তিনদিনের (২৮-৩০ অক্টবর,২০২১) একটি আন্তর্জাতিক ওয়েবনিয়ার। এই আন্তর্জাতিক ওয়েবনিয়ারের উদ্বোধন করেন ঝাড়গ্রাম সাধু রামচাঁদ মুর্মু বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক অমিয় কুমার পাণ্ডা। ওয়েবনিয়ারে স্বাগত ভাষণ দেন সেবা ভারতী মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ  দেবপ্রসাদ সাহু। এই আন্তর্জাতিক আলোচনা চক্রের সম্পাদিকা অধ্যাপিকা রুবি আদক পাণ্ডা  আলোচনার থিম নিয়ে প্রারম্ভিক ভাষন দেন। প্রধান আলোচক ছিলেন  উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সমর কান্তি বিশ্বাস।প্রথম দিনের আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক বিধান কান্তি দাস। প্রথম দিনে  ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন কেশপুর সুকুমার সেনগুপ্ত মহাবিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডঃ শান্তনু পাণ্ডা । প্রথম দিনে সমগ্র অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন সেবা ভারতী মহাবিদ্যালয়ের

অধ্যাপিকা মৌসুমী মিত্র।দ্বিতীয় দিনে আলোচনা করেন কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক অরুপ রতন বন্দোপাধ্যায়, বাংলাদেশের রাজশাহি বিশ্ববিদ্যালয়ের

অধ্যাপক মহম্মদ গোলাম হোসেন। আলোচনার সভাপতিত্ব করেন  ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট ইউনিভার্সিটির নৃ-তাত্ত্বিক অধ্যাপক সুবীর বিশ্বাস। নৃ-তাত্ত্বিক গবেষণা ও মহামারি বিষয়ে তিনদিনের আলোচনা চক্রে, উপাচার্য বলেন মহামারিতে  নৃ-তাত্ত্বিকদের যথেষ্ট ভুমিকা আছে। অধ্যাপকদের আলোচনায় উঠে আসে "জৈবিক ও পরিবেশগত ফ্যাক্টর এই মহামারীর জন্য দায়ী "।দ্বিতীয দিনে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন অধ্যাপক ডঃ শমিত কুমার মাইতি,সঞ্চালনা করেন সেবা ভারতী মহাবিদ্যালয়ের আধ্যাপক ডঃ অলক সেন বর্মণ। তৃতীয়  দিনে আলোচনা করেন উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃ-ত্ত্বের  আধ্যাপক পিনাক তরপদার।উনার কথায় উঠে আসে "মানব শরীরে কি ভাবে মনের সঙ্গে স্বাস্থ্যের সম্পর্ক কিভাবে ওতোপ্রোতভাবে জড়িত এবং কিভাবে স্বাস্থ্য, অসুস্থতা ও রুগ্নতা  মানব শরীরে প্রভাব ফেলে "। এদিন আলোচনা করেন বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আধ্যাপক সুমহান বন্দোপধ্যায়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় আধ্যাপক আদিল চৌধুরী।তৃতীয় দিনে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন সেবা ভারতী মহাবিদ্যালয়ের অধ্যপিকা ফারহাত নাজ।সঞ্চালনা করেন সুকুমার সেনগুপ্ত মহাবিদ্যালয়ের অধ্যাপক দেবাশীষ সাউ। এই তিনদিনে নয় জন নৃ-তাত্ত্বিক ও রাশি বিজ্ঞানী শেয়ার করেন তাদের মতামত এবং চব্বিশ জন গবেষক তাদের গবেষণা পাঠ করেন এই অনলাইন আলোচনা চক্রে।

এই আন্তর্জাতিক আলোচনা চক্রের কনভেনর ও সম্পাদিকা ছিলেন সেবা ভারতী মহাবিদ্যালয়ের অধ্যাপিকা রুবি আদক পাণ্ডা, যুগ্ম কনভেনর ছিলেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের সংস্কৃতি গবষেণা প্রতিষ্ঠানের ডঃ অরুপ মজুমদার সহ-সম্পাদক ছিলেন সূকুমায সেনগুপ্ত মহাবিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডঃ শান্তনু পাণ্ডা।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Student Registration (Online)

Trainee REGISTRATION (ONLINE)

                                                                                    👇           👉             Click here for registration...