Saturday, June 6, 2020

অথ জ্যামকথা || ভজন দত্ত || চ্যাটসাহিত্য

অথ জ্যামকথা 
ভজন দত্ত



- আজকাল ভীষণ চুপচাপ হয়ে গ্যাছো দেখছি!

- ও বলা হয়নি তাই না! মৃত আমি।বলো, মৃত কি কথা কয়!শুধু অনুভবে এই বেঁচে থাকা, ছুঁয়ে থাকা।

-  ধ্যাত!যত্তসব বাজে কথা! যাও কথা বলবো না..

- ওহো!তোমাকে বলা হয়নি না! কথাদের কষ্টকথা! চারপাশে শুধু তাদেরই জ্যাম।তুমি তো অন্ধ না!
- কী

 -কথাদের এত এত জ্যামে কথাদের তো ছাড়তেই প্রাণ চায় না! কী হবে, এভাবে কথা সেলাই করে বেঁচে!এই ভালো মরে বেঁচে থাকা।

- আর ভাল্লাগে না! সবেতেই এত ক্যাঁচাল কেন? সোজাসাপ্টা কি কথা বলা যায় না!

-কথায় তো কোনো স্পিন নেই। স্যুইং নেই।কথা তো নদীর জল।

- তোমাকে নিয়ে না...

- চিতার আংরাপোড়াকাঠ হয়ে নিজেই ভাসি সেই জলে। কবে কোন অলস মুহূর্তে পুড়ে গেছে যে জীবন। তার সব পোড়া ক্ষত ও দাগ ছাই জানে...

- উঃ! আবার...

- এই তো সশব্দে বৃষ্টি নামলো খরাবুকে,নয়নে নীরব বাণ।মরে তো গেছি সেই কবেই!সেকথা কেউ আজও জানলো না!যে আমি বেঁচে, সে কবেই মরে হেজে গেছে। তার খবর পৃথিবীর কেউ রাখে না....

3 comments:

  1. দারুণ হিউমার, "অথ জ্যাম কথা"। পরিবেশ পরিস্থিতি এখন চুপকথার। কথা বললেই বিপদ। তাই মানুষ বেঁচেও মৃত। মানুষের সংলাপ নেই। দারুণ। অভিনন্দন।

    ReplyDelete
  2. ধন্যবাদ দাদা।

    ReplyDelete
  3. This comment has been removed by the author.

    ReplyDelete

পূরবী-৩৬ || অভিজিৎ চৌধুরী || ধারাবাহিক উপন্যাস

পূরবী(৩৬)  অভিজিৎ চৌধুরী। হুগলির গঙ্গা আর মা যে"ন মিলেমিশে রয়েছে তীর্থের স্মৃতির খাতায়।এখন খুব বিতর্ক হচ্ছে কোন ভাষা ক্লাসিকাল তা নিয়ে।...