রবিবার, ৭ জুন, ২০২০

মধ্যবিত্ত || সৌতিক হাতি || কবিতা

মধ্যবিত্ত || কবিতা
সৌতিক হাতি


মধ্যবিত্ত মানুষ
একটা দাঁড়িপাল্লার মতো।
সমান সমান থাকা চাই,
কেউ কিছু বুঝে ফেলবার আগেই
এক আধটা বাটখারা চাপিয়ে দিই,
হতে পারে সেটা মাসকারা কিংবা
ভালো থাকার অভিনয়ে রঙ বেরঙের মুখোশ!

এই বুঝি বেরিয়ে পড়ল
হাড়জিরে কঙ্কালসার দেহ,
করোনাকালের ক্ষিদে আর অভাবের মানচিত্র,
অতএব টাই কোট ডেনিমে ঢেকে নিই!
মরে গেলেও  ধরবো না ভিক্ষের ঝুলি
বরং তালি মারা প্যান্টে বুলিয়ে নেবো ইস্ত্রি!
পান্তাভাতে ছড়িয়ে দেবো বিরিয়ানির আতর।

যেহেতু তৃপ্তির ঢেকুর তোলাটাই লোকে চেনে,
মধ্যবিত্ত অভিনয় আত্মনির্ভরতা পুড়ে যায়৷
ক্ষয়ে যায় জুতোর শুকতলা সিস্টেমের শোষনে
অবশেষে লোকে অভাব-অবসাদ গল্প বলে জানে!

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

শব্দব্রাউজ ১৫৩। নীলাঞ্জন কুমার

  শব্দব্রাউজ ১৫৩। নীলাঞ্জন কুমার শব্দব্রাউজ ১৫৩। নীলাঞ্জন কুমার তেঘরিয়ার বিপাশা আবাসন কলকাতা  ১৬।৪। ২১ সময় সাতটা পন্ঞ্চাশ মিনিট । মনের দুয়ার...