Friday, June 26, 2020

বুলগেরিয়ার নতুন কবিতা || রুদ্র কিংশুক || ক্রিস্টিনা গুটেভার কবিতা

বুলগেরিয়ার নতুন কবিতা 
রুদ্র কিংশুক
ক্রিস্টিনা গুটেভার কবিতা


ক্রিষ্টিনা গুটেভা (Hristina Guteva, 1966)-র জন্ম বুলগেরিয়ার বুরগাস শহরে।  ১৯৯১-এ তিনি ভার্নার একটি একটি ইউনিভার্সিটি থেকে স্নাতক হন। ১৯৯৯-এ প্রকাশিত হয় তাঁর প্রথম ছোটগল্প ও প্রবন্ধ সংকলন এসকেপ ইন দ‍্য লাইট। ২০১৮ তে প্রকাশিত হয় তাঁর দ্বিতীয় বই, একটি কবিতা সংকলন  দ‍্য রুট ইজ আ ফ্লাওয়ার। তাঁর কবিতা এবং গল্প প্রকাশিত হয়েছে বুলগেরিয়ার বিভিন্ন ম্যাগাজিন ও দৈনিকে। ২০১৯ থেকে তিনি সোফিয়ার অধিবাসী।


কালো ঘুঘু

কালো ঘুঘু
বসেছে জানালার ধারে
তার চোখ আমার ওপর
 ছন্দময় খোলা বন্ধ
জানালা আমাদের আলাদা করে
সংযুক্ত করে
জানালা

***
*
নিঃসঙ্গতা

দরকারী
পাথর টুকরো থেকে
নিজেকে নির্মাণে

খুব ভারী লাগে
যখন তাদের সাজানোর
 পথ পাও না খুঁজে

***
*
 প্রথম পাতায় আমি কেঁদেছি
হেসেছি দ্বিতীয় পাতায়
তৃতীয়ের ওপর কেটেছে আঙ্গুল
চতুর্থ পাতায় আমার রক্ত লিখছিল
এবং এখনো লিখছে
এবং লিখছে

***
*
চোখ খোলা
এবং গতকালের বাইরে আসা

দীর্ঘতম পথ

***
*
 যখন জুলাই বৃষ্টি
 ক্ষমতা দরকার
চোখের মুখোমুখি হওয়া যা কাঁদে
তার চেয়েও বেশি
সাহস
স্বীকার করা
সেগুলো তোমারই

***
*

 সময়ের
একমাত্র অর্থ
 যে আমরা একসঙ্গে আছি
আমরা তাকে বলছি আমাদের

***
*
 লোকে বলে
হৃদয় বড়ো
মুঠোর মতো
 যদি তারা বন্ধ হয়
 তুমি কি সাঁতার কাটতে পারবে

***
*
 যখন আমি লিখতে চেষ্টা করছিলাম
কীভাবে বৃষ্টি আমায় ভাসাচ্ছে
আর আমার কাছে  মেলে ধরছে
 নতুন অর্থ ছবি না হওয়ার
 আমার মেয়ে তার ফোনে
আমার ছবি তুলে মজা পাচ্ছে
আটকে রাখছে আমাকে ছবির মধ্যে
 যেগুলোকে দেখাচ্ছে বৃষ্টি -আঁকা

No comments:

Post a Comment

পূরবী~ ১৫ || অভিজিৎ চৌধুরী || ধারাবাহিক উপন্যাস

পূরবী~ ১৫ অভিজিৎ চৌধুরী শূন্য হাতে ফিরি হে নাথ, পথে পথে। আপন মনে অনেকদিন পর গাইছিল তীর্থ।হচ্ছে না,লীনা বলল। যদুভট্ট বালকদের কানাড়া...