Friday, July 10, 2020

সৌমিত্র রায় - এর জন্য গদ্য ৬৭ || প্রভাত চৌধুরী || ধারাবাহিক গদ্য

সৌমিত্র রায় - এর জন্য গদ্য
প্রভাত চৌধুরী

৬৭.
সুবীর সরকার ॥ দেবীবাড়ি ॥ নতুন পাড়া ॥ কোচবিহার ॥ 736101
এই ঠিকানাটি কোনোদিন ভুলে যাবো না। কারণ কবিতাপাক্ষিক দপ্তরে অদ্যাবধি যত চিঠি এসেছে , তার একটা তালিকা প্রস্তুত করলে প্রমাণিত হবে উপরে লিখিত ঠিকানা থেকেই সর্বাধিক চিঠি এসেছে।এর প্রধান কারণ হল দূরত্ব। কলকাতা থেকে কোচবিহার , কিংবা কোচবিহার থেকে কলকাতা , যেভাবেই মাপঝোক করি না কেন , দূরত্বের কোনো কম-বেশি হবে না ।এই দূরত্বকে অতিক্রম করার জন্য সুবীরের ছিল এই কৌশল।এই চিঠিই সুবীরকে কবিতাপাক্ষিক -এর সঙ্গে   আষ্টেপৃষ্টে বেধে রেখেছিল। জড়িয়ে রেখেছিল। রেখেছিল কেন , বর্তমান-সূচক ক্রিয়াপদ 'রেখেছে ' লেখা উচিত ।
সুমিতেশ সরকার , মানসকুমার চিনি , রুদ্র পতি এবং সুবীর সরকার এই সু-নামগুলি বাংলাভাষার প্রায় সব পত্রিকার নিয়মিত কবি-তালিকায় পরিলক্ষিত হত। তা সত্ত্বেও এদের গুরুত্ব কখনোই কমে যায়নি। তার একমাত্র কারণ কবিতার প্রতি এদের আন্তরিকতা।সঙ্গে সঙ্গে কবিতাপাক্ষিকের প্রতি এদের পারিবারিক সম্পর্ক।
এবার সুবীরের কবিতায় আসা যাক। অনেকেই বলতে পারেন কবি সুবীর সরকার একটি কবিতাই লিখে চলেছে জীবনব্যাপী । আর সেই দীর্ঘ কবিতাটি থেকে অংশ বিশেষ একটা শিরোনাম বসিয়ে আলাদা আলাদা করে ভিন্ন ভিন্ন পত্রিকার জন্য পাঠিয়ে যাচ্ছে। এটা কি খুব দোষণীয় ! হলে কেন ? আরো অসংখ্য কবি আছেন , প্রাতঃস্মরণীয় কবি আছেন , তাঁদের সম্পর্কেও একই অভিযোগ দাখিল করা যেতে পারে।
তবে সুবীরের কবিতা সম্পর্কে একটা কথা খুব জোরের সঙ্গে ঘোষণা করা যায় , সেটা হল ওর কবিতা পড়লেই বোঝা যায় ওর বাসভূমির সামগ্রিক ক্ষেত্রফল। এটা বেশ বড়ো অর্জন বলেই আমার বিশ্বাস। এবার কবিতাপাক্ষিকে প্রকাশিত প্রথমদিকের কয়েকটি কবিতার কাছে যাওয়া যাক।
সুবীরের কপা-তে প্রথম কবিতাটি হল : চিত্রকল্প । ৪৫ তম সংখ্যায় প্রকাশিত হয়ছিল।কবিতাটি  খুব সহজ- সরলভাবে লিখে ফেলেছিল :
বাঁ দিকের গাল / একটি জলবিন্দু আবিষ্কৃত হয়।
সুখী রাজহাঁসের সঙ্গে কথাবার্তা বলার সময় এটা লক্ষ করেছিল সুবীর।
 ৪৮ সংখ্যার কবিতাটির নাম : চিঠি। ওখানে সুবীর অনায়াসে লিখে ফেলেছিল :
নীল চকখড়ি দিয়ে বাথরুমের দেয়ালে লিখে রেখেছি
অশ্রুমোচনের গল্প
এরই আর এক নাম রোমান্টিকতা, যা কবিদের অন্যতম একটি প্রধান অস্ত্র।
এখন সুবীরের বেশ কয়েকটি কবিতা থেকে দেখে নিতে চাই , শুধুই কি রোমান্টিকতা , নাকি তার বাইরেও অন্য কিছু আছে। আমি পরপর বিভিন্ন কবিতা থেকে তুলে নিচ্ছি key লাইনগুলি :
রেলস্টেশনের সামনে অপেক্ষা করে থাকে এযাবৎ আটকে থাকা বর্ষাকাল--
       লো
এখন থেকে প্রতিবছর / পোষা বেড়ালেরজন্মদিন পালিত হবে

প্রশ্নচিহ্ন থেকে বেরিয়ে আসে ভোরবেলা

দীর্ঘ এক সাঁতার অপেক্ষা করছে আমাদের জন্য।

পুননির্মাণের আগে সক্রিয় হয়ে উঠছে সব অদৃশ্য হাত

এর সঙ্গে যোগ করতে হবে
রাস্তা পেরোবার আগে সবকিছু / অপ্রাসঙ্গিক মনে হয়

এরসঙ্গে যুক্ত করতে হবে : লোককথা , লোকগান, লোকবাদ্য জাতীয় লোকতান্ত্রিক শব্দগুলি। তাহলেই সন্ধান পাওয়া লোকপ্রিয় সুবীর সরকারকে। এই লোকপ্রিয় শব্দটির ব্যাসবাক্য হল : অপর লোককে প্রিয় করে নিতে জানে যে।
এটা কী সমাস তা জানা যাবে কীভাবে !

No comments:

Post a Comment

সৌমিত্র রায় - এর জন্য গদ্য ১০০ || প্রভাত চৌধুরী

সৌমিত্র রায় - এর জন্য গদ্য প্রভাত চৌধুরী ১০০. আজ ১০০ তম পর্ব। আজ দৈনিক বাংলা-র জন্য বরাদ্দ করলাম। বাংলায় অনুবাদ করলে যা দাঁড়াবে , তা...