রবিবার, ২ আগস্ট, ২০২০

যুগাবতার || অরবিন্দ মুখোপাধ্যায় || অণুগল্প

অণুগল্প--    যুগাবতার
                   
                  অরবিন্দ মুখোপাধ্যায়




---- কি সব বিচ্ছিরি  ভাষা তোর ! শুনে মনে হয় ভদ্রতা দূর অস্ত, কমন সেন্সটুকুও নেই।
----- ঘ্রাণশক্তিটুকু আর অবশিষ্ট  আছে? শুধুই নাক উঁচু ভাব করিস ।  ভণ্ডামি..।
------ এই মুখ আছে বলে অনেক সময়  তোর মান বাঁচে, বুঝলি ?
------- কত লোক যে ওয়াক থুঃ করে,  মুখরা বলে ; তখন ভাবি- কেন আমি উঁচু অবস্হানে। কেনই বা তোর কাছাকাছি থকলাম... ।
-------- তোর প্রতিবেশীসুলভ মানসিকতার অভাব । পাকিস্তানের মত।
-------- তা তো বলবিই..। তোর দুর্গন্ধটাও আমাকে সহ্য করতে হয়। হা  ভগবান--।
-------- আমার হাসি কত মানুষকে তৃপ্তি দেয় । তোর হিংসে হয়।
-------- আমি অক্সিজেন  নিই, কার্বন ডাই অক্সাইড  ত্যাগ করি। জীবন  বাঁচাই ।
-------- খাবারকে গলায় নিই বলেই না তোর এত অহংকার ! কখনো আবার বর্জপদার্থ ঠেলে দিয়ে তার প্রতিদান দিস।
নাক মুখের এই কলহ প্রায় লেগেই থাকে। স্বয়ং সৃষ্টিকর্তাও এদের থামাতে পারেন না। গোড়ায় গলদ। এখন তো অবস্থানের পরিবর্তনও অসম্ভব। কিন্তু যুগে যুগে কারও কারও আবির্ভাব, সমস্যা সমাধান অথবা প্রকটের জন্য এগিয়ে আসে । বোধহয় মাস্কও এখন সেরকমই এক 'যুগাবতার '। নাক মুখ এখন রেড জোনে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

একগুচ্ছ হাইকু || সুধাংশুরঞ্জন সাহা || কবিতা

একগুচ্ছ হাইকু সুধাংশুরঞ্জন সাহা (এক) আমার আছে নানা রঙের পাখি মায়াবী চোখে । (দুই) দুদিন ছিল একটু মনমরা ঘরে বাইরে । (তিন) আজ আবার মানুষ মেখেছ...