সোমবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২০

কিছু বই কিছু কথা । নীলাঞ্জন কুমার ঘনিষ্ঠ বসবাস । নমিতা চৌধুরী

কিছু বই কিছু কথা । নীলাঞ্জন কুমার 



ঘনিষ্ঠ বসবাস । নমিতা চৌধুরী । নান্দীমুখ সংবাদ । কুড়ি টাকা ।


পুরোনো কবিতার বই পুনঃপাঠ করতে গিয়ে বহুলাংশে চূপ করে থাকা উৎকৃষ্ট পংক্তি যখন প্রকাশ্য হয়,  তখন নিজেকে আবিষ্কারক আবিষ্কারক মনে হয় । যেমন হয়েছে কুড়ি বছর আগে প্রকাশিত কবি নমিতা চৌধুরীর  কাব্যগ্রন্থ ' ঘনিষ্ঠ বসবাস ' পড়তে গিয়ে । এর পর্যাপ্ত কারণ এই সব পংক্তি:  ' এ যেন আচমকা ভুল বই-এর পাতা খুলে বসা/  এবং অবাক চোখে তাকিয়ে দেখা / কত না জানা ঘুমন্ত ইতিহাস  / শুয়ে আছে গুটি সুটি মেরে । ' ( ' পুরাপর্ব '), ' পথ এবং পথ শেষের দুরত্ব চিহ্ন ঘুচিয়ে/  এখন সে ভাঙা ডালের শুকনো পাতা কুড়োয় ' ( ' নিখোঁজ মানুষের গল্প '),' সন্ধি এবং বিবাদের মাঝখানে/  আমরা পরস্পর পরস্পরকে দেখব প্রবীন বিস্ময়ে ।' ( ' ভ্রমণ এক ')।

           কবির কবিতার প্রধান গুণ হল অন্তঃসলিলা ব্যন্ঞ্জনা । তা যখন ধীরে ধীরে উপসংহারে পৌঁছোয় তখন কথাই নেই। ' আমরা লোভীর মতো মেঘের দেওয়াল/  চেটেপুটে তৃষ্ণা মেটাই ' - এর মতো দুষ্টুমি মেশানো লাইনও পাই তাঁর কাছে । তিনি পাঠকের কাছে ধরা দিতে চান,  যাতে তারা তাঁর কবিতার প্রতি তন্নিষ্ঠ হয় । 

     কবি তবু কিছু কিছু সময় শ্লোগানের সামনে আসেন,  তখন তাঁর কবিতা মে দিবস  শিশু শ্রমিক ভূমিহারা দের নিয়ে কথা বলে । যা এই বইটিতে পরিহার করলে বইটির মান বাড়তো । '  ঘনিষ্ঠ বসবাস ' এ কারণে ভালো লাগে কারণ তার মধ্যে মিলনের গন্ধ ঘোরে । যোগেন চৌধুরীর প্রচ্ছদের স্কেচও তার জানান দেয় ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

সবাই মিলে সিনেমা হলে ২১ || সিনেমা ও বিরতি || কান্তিরঞ্জন দে

  সবাই মিলে সিনেমা হলে ( ২১) সিনেমা ও বিরতি  কান্তিরঞ্জন দে        নমস্কার ।  উৎসবকালীন বিরতির পর আবার ফিরে এলাম । আমরা যখন সবাই মিলে সিনেমা...