শুক্রবার, ৬ নভেম্বর, ২০২০

কিছু বই কিছু কথা || নীলাঞ্জন কুমার || বিদায় তোমাকে, হে স্থগিত উচ্চারণ || ব্রজ চট্টোপাধ্যায়

কিছু বই কিছু কথা।  নীলাঞ্জন কুমার




বিদায় তোমাকে,  হে স্থগিত উচ্চারণ । ব্রজ চট্টোপাধ্যায়
। কন্ঠস্বর প্রকাশনী । পনেরো টাকা।

' দুরত্বে কেন এই ক্লান্তি,  কোলাহল হলেই অস্থির কেন ' কেনই বা উচ্চারণে এই স্তব্ধতা/  স্বপ্নে আলোহীনতাই বা কেন ' (যদি পাও খুঁজে নাও ') এই পংক্তির মতো অলঙ্ঘ হাজারো প্রশ্নের মধ্যে দিনযাপন করেছিলেন প্রয়াত কবি ব্রজ চট্টোপাধ্যায় ।  এই  প্রশ্নের উত্তর তিনি পাননি,  তবে পেয়েছিলেন সামান্য হলেও কবিতার  সন্ধান । যার জন্যে পাই:  ' এই ভূমির দখলে আমার শক্তি/  প্রকৃতভাবে প্রতিষ্ঠা হলেও তুমি দাঁড়াবে কোথায়? ' ( ' ভাবনা ') , ' চোখে ভয়ংকর দৃষ্টি তাকে জন্মের ক্ষণে নিয়ে যায়/ আমি আমার এই অস্তিত্বের জন্য দায়ী? '( ' হঠাৎ গানের মধ্যে এক শব্দহীনতা ') -র ভেতর দিয়ে তাঁর অমোঘ প্রশ্নাবলি পাঠকের কাছে ছুঁড়ে দেন তিনি 'বিদায় তোমাকে, হে স্থগিত উচ্চারণ ' কাব্যগ্রন্থে । ২০০০ সালের কাব্যগ্রন্থটির ভেতরে কখনো সখনো  তেমনভাবে গড়ে ওঠেনি কাব্যিক মগ্নতা , কখনো বা কবিতাহীন সরল গদ্য বিব্রত করে,  কিন্তু তাও চাবিকাঠি দিয়ে গেছেন পাঠককে যা দিয়ে অন্তত এই প্রশ্নের ঘর খুলে দেওয়া যায় ।
                কবি ব্রজ চট্টোপাধ্যায়ের সৃষ্টি নিয়ে কথা বলতে গেলে প্রথমেই আসে তাঁর বিশ্ব সাহিত্যের উপর নিবন্ধের কথা । যা একটি কবিতা পত্রিকাতে নিয়মিত প্রকাশিত হয়েছে । তারপর অনুবাদ, সব শেষে কবিতা ।
তাঁর কবিতায় প্রধান অভাব রহস্যময়তা , কঠিন সত্য এটিই । তবু তার মধ্যে লক্ষ্যণীয়:  ' তবু কেন আজও ভিক্ষা এই/  উদ্ধত অহংকারের কাছে?  / মোমের মতো জ্বলতে থাকে স্থবির সময় । ' ( মোমের মতো জ্বলতে থাকে স্থবির সময় ') , ' সে একা একা নিজের আলোয়/ স্নান সেরে ফেরে/  অবিরত ...' ( ' এক নতুন শিল্পকলা ')। কবিকৃত প্রচ্ছদটি দেখে বোঝা যায় কবি তাঁর শখ মিটিয়েছেন ও পাঠকের বিরক্তির কারণ হয়ে উঠতে চেয়েছেন । বিন্দুমাত্র চিত্রশিল্প ও প্রচ্ছদের মাহাত্ম্য না জানা মানুষ প্রচ্ছদ করলে এরকম কুচ্ছিত প্রচ্ছদ হবে,  তাতে অবাক হওয়ার বিন্দুমাত্র কারনই নেই ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

শিক্ষা-জীবন || চার্লস মিথুন || অন্যান্য কবিতা

শিক্ষা-জীবন চার্লস মিথুন জগৎ মাঝে জন্ম নিয়েই, শিক্ষা জীবন শুরু। শেখার বয়স শেষ হবে না, হও না যতই বড়॥ মায়ের কাছে শিখবে প্রথম, প্রাণের কথা বলা।...