শনিবার, ২১ নভেম্বর, ২০২০

কিছু বই কিছু কথা ১৯৯ || নীলাঞ্জন কুমার || বাগান ছড়িয়ে যাক || গোপা আচার্য || সীমান্ত

 কিছু বই কিছু কথা ১৯৯  নীলাঞ্জন কুমার




বাগান ছড়িয়ে যাক । গোপা আচার্য । সীমান্ত । বারো টাকা ।

গত পঁচিশ বছর আগে প্রকাশিত হওয়া কাব্যগ্রন্থ , কোন নারী কবির হত তবে সেখানে নারীবাদিত্বের ঝাঁঝ ব্যাপকভাবে উঠে আসতো। কবিতা সিংহ,  তসলিমা নাসরিন,  কৃষ্ণা বসু  প্রমুখের  নারীবাদের কবিতা তৎকালীন তরুণী নারীবাদীদের  কবিতার ক্ষেত্রে স্পষ্ট প্রভাব লক্ষ্য করা গেছে । তার বিপরীতে দাঁড়িয়ে যাঁরা লিখেছেন,  তারা কিন্তু মৃদুমন্দ ভাবে পুরোনো ' মহিলা কবিদের ' লেখনীর প্রবণতা নিয়ে কবিতা যাপন করার চেষ্টা করেছেন । তার মধ্যে পেয়ে যাই কবি গোপা আচার্যের কবিতা তাঁর দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ ' বাগান ছড়িয়ে যাক ' মাধ্যমে ।
           কবির এই কাব্যগ্রন্থের প্রধান বিষয় হলো প্রেম :
' বৃক্ষ থেকে ফুল হেসে বলেছিল-  / 'মালা গাঁথো ' / সেই থেকে গাঁথা আর গাঁথা । / কাকে যে পরাবো-  এখনো জানি না । ' ( ' সেই থেকে ') পংক্তির ভেতর দিয়ে তাঁর এই সমর্পণ তসলিমাদের কাছ থেকে তাঁকে আলাদা করে । কবি বিভিন্ন ইঙ্গিতের ভেতর দিয়ে প্রেমকে নিয়ে এসেছেন তাঁর মতো করে । তাই:  ' আগাছা উপড়ে ফেলি/  বাগান ছড়িয়ে যাক বুকের ভিতরে ।' ( ' বাগান ছড়িয়ে যাক ') , ' সকাল সন্ধে দুঃখ এখন হাসতে হাসতে/  কেবল এপার -ওপার করছে । ' ( 'দুঃখ এখন '), 'ঢেউয়ের মতো নাচতে নাচতে ঝাঁপিয়ে পড়ে বুকের উপর/  বলবে তুমি নিমন্ত্রণ । নিমন্ত্রণ । নিমন্ত্রণ । ' ( ' নিমন্ত্রণ ') পংক্তিগুলি তার উদাহরণ ।
           প্রেম শ্রদ্ধা স্নেহের মেশামিশি করে যে ভালোবাসা  ধ্রুবক হিসেবে থাকে তাকে খুঁজে নেবার চেষ্টা করেছেন কবি । তবে কাব্যগ্রন্থের সবচেয়ে বিরক্তির দিক কবির সরলতা যখন অতিসরলীকরণের রূপ নেয় । তখন কবিতায় ব্যন্ঞ্জনার লেশ থাকে না । কবি রমেন আচার্যের প্রচ্ছদে যত্নের ছাপ স্পষ্ট । প্রতীকী ঢঙে সুন্দর কালার কম্বিনেশনে তুলে ধরেছেন তাঁর সহজ সরল প্রচ্ছদটি । যা চোখ ও মনকে আরাম দেয় ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

সবাই মিলে সিনেমা হলে ২১ || সিনেমা ও বিরতি || কান্তিরঞ্জন দে

  সবাই মিলে সিনেমা হলে ( ২১) সিনেমা ও বিরতি  কান্তিরঞ্জন দে        নমস্কার ।  উৎসবকালীন বিরতির পর আবার ফিরে এলাম । আমরা যখন সবাই মিলে সিনেমা...