চলো পাল্টাই

চলো পাল্টাই
চিন্তন। মন্থন। চিরন্তন।

মঙ্গলবার, ১৭ মে, ২০২২

কিছু বই কিছু কথা - ২৯৩ । নীলাঞ্জন কুমার ত্রিতাল ও কুয়াশা । কুমারেশ চক্রবর্তী । উজানস্রোত প্রকাশনী , দত্ত পুকুর, উত্তর চব্বিশ পরগনা । একশো পন্ঞ্চাশ টাকা ।

কিছু বই কিছু কথা - ২৯৩ । নীলাঞ্জন কুমার




ত্রিতাল ও কুয়াশা । কুমারেশ চক্রবর্তী । উজানস্রোত প্রকাশনী , দত্ত পুকুর, উত্তর চব্বিশ পরগনা । একশো পন্ঞ্চাশ টাকা ।


অতি সাম্প্রতিক প্রকাশিত কবি কুমারেশ চক্রবর্তীর ' ত্রিতাল ও কুয়াশা' বইটির ভেতর ঢুকতে গিয়ে দেখি কবি এর আগের কয়েকটি বইতে যেভাবে অন্যস্বাদে লেখার চেষ্টা করছিলেন,  বর্তমান বইটিতে তিনি আবার কিছুটা হলেও ফিরে এসেছেন তার পুরনো লেখনী বৈশিষ্ট্যে। আমরা পড়ে যেতে পারি অত্যন্ত সাদামাটাভাবে লেখা তাঁর কবিতাগুলো যার ভেতরে সামান্য হলেও বিবৃতির স্বাদ পাই,  তবু তার মধ্যে ঠিকরে ওঠে এসব পংক্তি : ' কী চমৎকার জীবন আমার-  / এ এক উন্নততর রিফুময় টেরাকোটা! / বয়ে চলেছি একজন্ম ...দুইজন্ম....( জীবন সংগ্রাম ') ; ' আমার দৃষ্টির বিস্ফারিত ছায়াপথে/  তোমাদের ভাইরাসের গোপনীয় রংগুলো আজ ধরা পড়ে গেছে ! '( ' তোমরা যারা ') , ' ক্ষুব্ধ কবিতাও তার গরিব কবিকে অকারণে/  কাঠগড়ায় তুলে এনে অভিশাপ দিয়ে যেতে থাকে ...' ( ' সম্পাদকীয় ব্যবহার ও শীতঋতু) ।
        কবি কুমারেশের কবিতায় প্রথম থেকে লক্ষ্য করা গেছে যে তার ভেতর গণতন্ত্র,  শান্তি স্থাপন,  প্রতিবাদী অবস্থান দানা বেঁধে আছে।যা তিনি কবিতার ভেতর দিয়ে পাঠকের সামনে তুলে ধরেন । আর আনেন বলেই লিখে ফেলেন ' বুঝিনা দ্বন্দ্বমূলক বস্তুবাদ  কি এবং কেন? / কোনও রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের ভেতর দিয়ে/  শ্রমিকের নেতৃত্বে-  / কোথাও কি কোন সরকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে?  ( তোমার মতাদর্শ) ইত্যাদি ইত্যাদি যা আগের স্তবকের পংক্তিগুলোর সঙ্গে খাপ খায় না । তবু কুমারেশের নিরন্তর প্রয়াসের জন্য ধন্যবাদ । পলাশ পালের প্রচ্ছদ বিমূর্ত হলেও মনে দাগ কাটে না । বইটির মুদ্রণ প্রমাদ অসহ্য অবস্থায় পৌঁচেছে । যা পেন দিয়ে সংশোধিত হলেও বইটির ভেতর তা চিত্র বিচিত্রের রূপ নিয়েছে ।




1 টি মন্তব্য:

Registration (Online)

Trainee REGISTRATION (ONLINE)

                                                                                    👇           👉             Click here for registration...