বৃহস্পতিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০২০

কিছু বই কিছু কথা । নীলাঞ্জন কুমার সম্পর্ক । কুমারেশ চক্রবর্তী

কিছু বই কিছু কথা । নীলাঞ্জন কুমার 




সম্পর্ক । কুমারেশ চক্রবর্তী । দি সী বুক এজেন্সি । আশি টাকা ।


সম্পর্কের আসল রূপ সোজাসুজি তুলে ধরতে গিয়ে যখন কবি কুমারেশ চক্রবর্তী তাঁর ' সম্পর্ক' কাব্যগ্রন্থের সম্পর্ক কবিতায়  লেখেন : ' সম্পর্ক- /হাঁটু জলে কাদায় ঘুমহারা,  এক বিপন্ন ভগীরথ- /শেকড়ের প্রত্ন ধুয়ে পুঁছে বহতা গঙ্গার মতো তাকে/  সর্বজনীন করে রাখে ....'  তখন বোঝা যায় কুমারেশের ভেতরে সম্পর্কগত সুতীব্র চিন্তার দিকগুলি । যার বিস্তার তিনি করে গেছেন এই চার ফর্মার কাব্যগ্রন্থে। এই বিস্তারে ডানা মেলে তার প্রতিবাদ,  প্রেম,  জীবন চর্যা  ইত্যাদি । তাই পেয়ে যাই: 

' ডান বাম সবই সুযোগ সুবিধে মতো কিছু থামিয়ে রেখেছে/  কিছু ক্ষেপিয়েও দিচ্ছে লিফলেটে,  ভোটের ময়দানে- / স্রেফ দলের স্বার্থে ....' ( ' বৃষ্টি ' ), ' নিরপেক্ষ বলে কিছু নেই,  হয়ও না - / কেউই  নিরপেক্ষ নয়, / তোমাকে মৃত্যুর দলে,  অথবা জীবনের দিকে/  চলে যেতেই হবে ...' ( ' নিরপেক্ষতা ' ) , ' নিরীহ পাখিদের ডানার ভেতরে আগুন!  / বিশ্বাস করো কেউ আত্মহত্যা করবে না- / যুদ্ধ করবে ....' ( 'রণক্ষেত্রে' ) এর মতো পংক্তিগুলোতে । কবিকে পড়ে নিতে অসুবিধে হয় না তাঁর সহজতার গুণে । 

               অন্যান্য কাব্যগ্রন্থ থেকে এই কাব্যগ্রন্থে কাব্যভাষার দিক থেকে না পাল্টানোর কারণে কিছুটা হলেও তা প্যাটার্নে পরিণত হয়েছে।  মনে করি নতুন কাব্যগ্রন্থে পুরনো কাব্যগ্রন্থে কিছু আলাদা আশা করা অন্যায় নয় । তবু মাঠে মারা যায় না তাঁর অসাধারণ পংক্তিগুলি:  ' পিপাসা নেই,  ক্ষিদে নেই,  জানার ইচ্ছে নেই-  / স্বপাকে নিজের মাংস ভোজনই কেবল সুস্বাদু বলে মনে হয় ।'( সময়)  ' অতএব আত্মার কাছে নয়,  কবিতার কাছে অন্তত কিছুটা সৎ হতে চেয়ে/  আজকের প্রথম প্রভাতে নিজেকে ধুয়ে কেচে পরিস্কার করে নিলাম....' ( প্রতিবেশী ')।

                 কুমারেশ নিঃস্বার্থভাবে কবিতায়  আছেন বলে তিনি আজও কবিতায়  সজীব ।এ সজীবতা প্রতিটি কবির  কাম্য । পলাশ পালের প্রচ্ছদ রেখাপাত করে না ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

আশ্চর্য সহবাস || শ্রাবণী গুপ্ত || কবিতা

আশ্চর্য সহবাস শ্রাবণী গুপ্ত একটা গোটা জীবন আমরা গাছের বেড়ে ওঠা দেখলাম জাফরীর মতো আলো-ছায়া এসে পড়ল আমাদের গায়ে, হৃদয়ে তবু ঘৃণা করতে গিয়ে আম...