শুক্রবার, ১৩ নভেম্বর, ২০২০

কিছু বই কিছু কথা -১৯১ । নীলাঞ্জন কুমার || কালের অলিন্দ । সম্পাদনা- রবীন্দ্র বিশ্বাস

কিছু বই কিছু কথা -১৯১  ।  নীলাঞ্জন কুমার



কালের অলিন্দ । সম্পাদনা-  রবীন্দ্র বিশ্বাস
। অর্কিড । দশ টাকা ।


শিল্পী সমীর আইচের অসাধারণ প্রচ্ছদের ভেতরে যে তেরো জন কবির কবিতা সমন্বিত একটি কবিতা সংকলন প্রকাশিত হয়েছিল ১৯৮৮সালে ,  যার ভেতর দিয়ে আমরা খুঁজি কিছু নস্টালজিয়া ও সেই সময়ের নিরিখে নতুন ভাবনার কবিতা আমরা পাই রবীন্দ্র বিশ্বাসের সম্পাদনায়  'কালের অলিন্দ 'তে। বইটির  শেষে ' পুনশ্চ ' নামে সম্পাদকের কথাতে তাঁর কৈফিয়ত হিসেবে পাই:  ' কবিদের পক্ষে এই জবাবদিহি যথেষ্ট হবে যে-  স্বকীয় অস্তিত্ব ও দায়বদ্ধতার প্রতি আনুগত্যে অবিচলিত থেকে তারা সকলেই নিজস্ব প্রদ্ধতিতে দুর্বোধ্য এক সময়ের পাঠোদ্ধারের সযত্ন আন্তরিক আর যথাসাধ্য প্রয়াস পেয়েছেন । '  এই প্রয়াস কতখানি সফল বা বিফল তা নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণে না গিয়ে বলি, এই তেরো জনই আন্তরিক তাঁদের কবিতাকর্মে । সে কারণে  পলাশ ভট্টাচার্যের ' এ হৃদয়টুকু ঘিরে / স্তম্ভ বানাতে পারে/ সময়ের কিশোর বালক,  পরিত্যাজ্য রমণী ' ( ' হৃদয় ') , নারায়ণ মুখোপাধ্যায়ের ' চিতা যখন জ্বলতে থাকে তখনও নেই/  সাত জন্মের নীরব- /তুমি কে গো ' ( ' প্রতিবিম্ব ') ,  অর্ধেন্দু  চক্রবর্তীর  ' তাপ- বিদ্যুতে দারুণ আলো,  আলোর ভেতর/  কান পাতলেই শুনবে অবোধ তিতির কাঁদে । ' (' ভুল ' ) , অশোক চক্রবর্তীর  ' ' অবকাশ অনেক দিন এখনও রয়েছে/  অথচ/  রাস্তার উপর গড়িয়ে চলে গেল চাকা । ' ( ' অবকাশ অনেক ছিল ') -র অনিবার্য উচ্চারণগুলি তার প্রধান উদাহরণ ।
              কালজয়ী বা কালোত্তীর্ণ র দাবি না করে স্রেফ কালের অলিন্দে বসবাস করার প্রবণতা নিয়ে গঠিত তেরো জনের কবিতার সঙ্গে ভাবভালোবাসা  গড়ে ওঠে ।  কবির পার্থিব কিছুর প্রতি অনীহা আমাদের জ্ঞাত । তা দেখতে পাই এঁদের কবিতায়  । রবীন্দ্র বিশ্বাসকে ধন্যবাদ এঁদের কবিতার কাছে পাঠককে  নিয়ে যাবার জন্য ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

অবহেলা || দীপক মজুমদার || অন্যান্য কবিতা

অবহেলা দীপক মজুমদার আর গোপন রাখব না আমাদের সম্পর্কের ইতিবৃত্ত।  শব্দের খাঁজে লুকানো গোলাপের উষ্ণতা। ঝাউবনের নির্জনতায় জৌলুস সম্পৃক্তি। প্রি...