শনিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২০

কিছু বই কিছু কথা ২২৮ || নীলাঞ্জন কুমার || আমি এখন || পবিত্র মুখোপাধ্যায়

কিছু বই কিছু কথা ২২৮। নীলাঞ্জন কুমার




আমি এখন । পবিত্র মুখোপাধ্যায়
। অর্কিড প্রকাশনী । পনেরো টাকা ।


ষাটের কবি পবিত্র মুখোপাধ্যায়ের ১৯৯৪ সালের কাব্যগ্রন্থ ' আমি এখন ' তে পাই সে সন্ধান, যা মৃত্যুবোধের  সামনে দাঁড়িয়ে অনিবার্য হয়ে ওঠে   :
' খুঁজছি , তোমার কোনো আরোগ্যবীজ ফলে আছে কিনা ' কিংবা ' আজ দেখছি ধর্মের আড়ালে  আত্মা পড়েছে ঢাকা । / মৃত্যুগন্ধে বাতাস হয়ে উঠেছে ভারী '
( ' ঝাঁপিয়ে পড়বার অপেক্ষায় ' )  মতো অগুনতি পংক্তি  দীর্ঘ ও নাতিদীর্ঘ কবিতার  সাধারণ কথাবার্তার ভেতর দিয়ে তিনি ছুঁড়ে দেন ।
        ' তারপরও শেষ অস্ত্রটি ছুঁড়তে পারো/  তুমি । অস্ত্র? / চোখের আগুন- ওতো/  নেভবার নয় । ' ( 'অভিমন্যু ' ) , ' সারাদেশ জুড়ে গেন্ডুয়া খেলে প্রেতের দল,  / প্রাণ শুষে নিয়ে ওরা হয়েওঠে প্রাণোচ্ছল ।' ( ' হিমার্ত হাত সরিয়ে নাও ) , ছয় দশক ধরে কবিতাতে বিচরণ করা এই কবির কাছে এ ধরনের প্রাপ্য আরো পেয়ে যাই,  যেমন: ' নিত্য উচ্ছ্বল জীবনে ভেসে থাকি/    ভাবছি-  সারাদেশে কার্নিভাল ; /  আমার স্থূল দেহ আরামে ঢেকে রাখি,  / অদূরে দেখি হাসে  ক্লান্তিকাল । '
( ' মধ্যবিত্ত ' -১)  বড় সহজে দুঃখের কথা , ক্ষোভের কথা শুনিয়ে দেয়!
       কবি পবিত্র মুখোপাধ্যায়ের কবিতা পড়ে তাঁর সহজতার সঙ্গে ভাব হতে পারে পাঠকের। তিনি যা সন্ধান করেছেন এই কাব্যগ্রন্থে তা বেশ কিছু  কবিতা দীর্ঘতর হওয়ার কারণে কখনো সখনো ক্লান্তি আনে । বিমূর্ততায় আচ্ছন্ন প্রচ্ছদকর্ম অন্য মেজাজ আনে প্রচ্ছদকার শুভব্রত চক্রবর্তীর  ক্যারিশমায়।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

২টি কবিতা || অমিত কাশ‍্যপ || আজকের কবিতা

২টি কবিতা অমিত কাশ‍্যপ শ‍্যামনগর শ‍্যামনগরের পাশেই রাধিকাপুর হতে পারত ওই হল না, এমনটাই হয়  তন্ময়বাবু হাসিখুশি মানুষ, বউ বেজায় গম্ভীর  খিটিমি...